কোম্পানীগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবদে মানববন্ধন

কোম্পানীগঞ্জ  (নোায়াখালী) প্রতিনিধি :: বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সোবহান এর সন্তানদের উপর হামলার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বিকেল ৪ ঘটিকায় আতাউল গনি স্বপন (৪২) এর উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে উপজেলার বসুরহাট বাজারস্থ বঙ্গবন্ধু চত্ত্বরে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ উপজেলা শাখার উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ উপজেলা আহ্বায়ক আবদুল মালেক এর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-আহ্বায়ক এস.কে জিহাদ এর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বসুরহাট পৌরসভা মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

তিনি বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সোবহান এর সন্তানদের ওপর যারা হামলা চালিয়েছে এরা শুধু এই ঘটনা নয় এর আগেও তারা অনেক ঘটনা ঘটিয়েছে, আমরা পৌরসভার পক্ষ থেকে সুন্দর একটা সমাধান চেয়েছিলাম কিন্তু অসহযোগিতার অভাবে আমরা এর সমাধান করতে পারিনি।

তিনি আরো বলেন আমি ওয়াদা দিচ্ছি এ সমস্যার সমাধান করার জন্য পৌরসভার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। যদি সমাধান না হয় এই সমস্যার সমাধানে আইনানুগ ব্যবস্থার সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা।

এসময় তিনি প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, যারা এই ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়েছে সে যেই হোক তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সরকারি ঘর দেয়াকে কেন্দ্র করে এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে দাবি করে তিনি আরও বলেন মুক্তিযোদ্ধাদের সরকারিভাবে যে ঘর গুলো দেওয়া হচ্ছে এই ঘরগুলো যেন তারা সুন্দরভাবে বুঝিয়ে পায় সে লক্ষ্যে আমার পৌরসভা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করে যাবে।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা শাখা সাবেক কমান্ডার আজিজুল হক,বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ উপজেলা শাখার যুগ্ম-আহ্বায়ক জহির উদ্দীন আরমান ও মাহেরা আক্তার প্রমূখ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৪ আগষ্ট-২০২২ রোজ বৃহস্পতিবার রাতে মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সুবহানের ছেলে আতাউল গণি স্বপণ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধকরে বাড়ি যাওয়ার পথে সন্ত্রাসীরা তার ওপর অতর্কিত হামলা করে। এসময় আহত স্বপনের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে গুরতর আহত অবস্থায় তাকে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসা দিতে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়। এ বিষয়ে প্রতিবেশী  মোঃ জিহাদ (২২) ও মোঃ জাহিদুল ইসলাম সহ ৬ জনকে আসামীকরে কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। 

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.