কবিরহাটে পরকীয়ায় জড়িত সন্দেহে স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা, স্বামী আটক

www.noakhalitimes.com
কবিরহাট (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় পরকীয়ায় জড়িত সন্দেহে এক গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা করেছে স্বামী। নিহত গৃহবধূ রূপালী বেগম (২০) উপজেলার কবিরহাট পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মনির চৌকিদার বাড়ির সিরাজ মিয়ার মেয়ে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ইউসুফ নবী রুবেলকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ। আটক ইউসুফ নবী রুবেল কবিরহাট পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পূর্ব সোনাদিয়া গ্রামের আবু তাহের বাবুল মেম্বার বাড়ীর মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ৩ মাস আগে রূপালি বেগমের সঙ্গে ইউসুফ নবী রুবেলের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। কিন্তু রূপালি বেগমের পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে বলে স্বামী রুবেল প্রায় সন্দেহ করতেন এবং এ নিয়ে প্রায় তাদের মধ্যে কলহ দেখা দেয়। তারই জের ধরে শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঘাতক স্বামী রুবেল রূপালি বেগমের ওড়না দিয়ে হাত-পা বেঁধে ফল কাটার চুরি দিয়ে তাকে জবাই করে হত্যা করে। এ সময় ঘরে থাকা বৃদ্ধ মায়ের চিৎকারে বাড়ীর লোকজন এসে রুবেলকে আটক করে। 

স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে রোববার (১২ জুন) সকাল পৌনে ৯টার দিকে ময়নাতদন্তের মরদেহ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে এবং ঘাতক স্বামী ইউসুফ নবী রুবেলকে (২৬) রক্তমাখা ছোরাসহ আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী রুবেলকে আটক ও হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে জেনেছি পরকীয়ার জেরে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। পরকীয়ার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নিহতের ভাসুর রফিককে (৩০) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.