কোম্পানীগঞ্জে স্বাস্থ্যকর্মী (নার্স) প্রিয়তা হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সরকারি মুজিব কলেজের ছাত্রী ও স্বাস্থ্যকর্মী (নার্স) শাহনাজ পারভীন প্রিয়তার (২২) হত্যার ঘটনায় মমিনুল হক প্রকাশ ফারুককে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১ মার্চ) রাতে বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেফতার মমিনুল হক ফারুক কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মজিবুল হক মাস্টার বাড়ির মজিবুল হকের ছেলে। ফারুক বোম্বে সুইটস কোম্পানির বসুরহাট শাখার বিক্রয় প্রতিনিধি (এসআর) হিসেবে কর্মরত রয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজ্জাদ রোমন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার নিহতের পিতা নুরনবী বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতার আসামি এ ঘটনায় প্রত্যেক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত আছে মর্মে পর্যাপ্ত সাক্ষ্য প্রমাণ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১টার দিকে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ইয়াছিন মোল্লা বাড়ির পেছনের ধানক্ষেত থেকে শাহনাজ পারভীন প্রিয়তা (২৬) নামে এক শিক্ষানবিশ নার্সের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শাহনাজ পারভীন প্রিয়তা কবিরহাট উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের ভূঁঞারহাট বাজার এলাকার নুরনবীর মেয়ে। তিনি বসুরহাটের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে শিক্ষানবিশ সেবিকার কাজ করতেন এবং বসুরহাট পৌরসভা ৭নং ওয়ার্ডে তার নানার বাড়ি ইয়াছিন মোল্লা বাড়িতে থাকতেন।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.