কোম্পানীগঞ্জে পুলিশের হস্তক্ষেপে দুই পক্ষের কর্মী সমর্থকরা বড় ধরণের সংঘাত থেকে রক্ষা পেল,অস্ত্র উদ্ধার

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি :: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ।এর পরে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি পাইপগান ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের হস্তক্ষেপে উভয় গ্রুপের লোকজন বড় ধরণের সংঘাত থেকে রক্ষা পায় ।

পুলিশ সূত্রে জানাযায়,মুছাপুর চৌধুরী বাজারে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস মার্কা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আইয়ুব আলী (মেয়র সমর্থিত)  সমর্থনে আজ সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার উপস্থিতিতে পথসভা করার সিদ্ধান্ত নেয় ।একই স্থানে মোটরসাইকেল মার্কা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নজরুল ইসলাম শাহীন(বাদল সমর্থিত) পক্ষের লোকজন  নিবার্চনী গণ সংযোগ করে।এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপে সংঘর্ষের মুখামুখি হয়।এসময়ে এসআই (নিরস্ত্র) মোঃ সাঈদ মিয়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ থানা এলাকায় স্পেশাল-৩৩ ডিউটি করাকালে বেতার যন্ত্রের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয়কে নিয়ন্ত্রণে আনে ।

অপরদিকে বাগধারা বাজার এলাকায় সোনাগাজী মহাসড়কের চৌধুরীহাট বাজারে যাওয়ার রাস্তার মুন্সী বাড়ী সংলগ্ন মাইন উদ্দিনের চা-দোকানের পিছনে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি পাইপগান ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করে ।কোম্পানীগঞ্জ থানা ওসি সাজ্জাদ রোমন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে নির্বাচনী মাঠে প্রভাব বিস্তার করার জন্য কোনো পক্ষের হয়ে সোনাগাজী থেকে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা এসেছে। পুলিশের অভিযানের টের পেয়ে অস্ত্র ফেলে পালিয়ে যায় ।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.