বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনায় প্রধান আসামির ৭দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুরে বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি বাদলকে ৭ দিনের ও ইউপি সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগকে ২ দিনের  রিমান্ড দিয়েছে আদালত। মামলা তদন্তকারী অফিসার বেগমগঞ্জ থানার এসআই মোস্তাক বিষয়টি নিশ্চিৎ করে বলেন, নোয়াখালী চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত বেগমগঞ্জ ৩নং আমলী আদালতের বিচারক মাসফিকুল হকের আদালতে  এ রায় দেন ।
এনিয়ে এ মামলায় মোট ৬ জনকে গ্রেফ্রতার করা হয়েছে।
এর আগে নির্যাতনের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে ৪ সেপ্টেম্বর রোববার রাতে ৯ জনের বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেন।
মামলার এজাহারে নির্যাতনের শিকার ওই নারী উল্লেখ করেন, গত ২ সেপ্টেম্বর দীর্ঘদিন পর বাপের বাড়িতে তার স্বামী তার সাথে দেখা করতে যান। রাত ৯টার দিকে শয়ন কক্ষে স্বামী স্ত্রী একসাথে ফ্লোরে ছিলেন। এ সময় বাদল, রহিম, আবুল কালাম, ইস্রাফিল হোসেন, সাজু, সামছুদ্দিন সুমন, আবদুর রব, আরিফ ও রহমত উল্যা সহ অজ্ঞাত আসামীরা দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে। এরপর স্বামীকে মারধর করে পাশের কক্ষে নিয়ে আটকে রাখে। এক পর্যায়ে তারা ওই নারীকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এতে রাজি না হলে আসামীরা তার ওপর নির্মম নির্যাতন চালায় এবং মুঠোফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখে। এ সময় তার আত্মচিৎকারে আসপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামীরা কাউকে কিছু জানালে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। আসামীরা চলে যাওয়ার পর কাউকে কিছু না জানিয়ে নির্যাতিতা নারী জেলা শহর মাইজদীতে বোনের বাড়িতে আশ্রয় নেন। সেখানে থাকা অবস্থায় আসামীরা মুঠোফোনে তাদের প্রস্তাবে রাজি না হলে অশ্লিল ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে রবিবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুঠোফোনে ধারণকৃত ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.