সেনবাগে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ আটক ৫

সেনবাগ (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর সেনবাগে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ ৫জনকে আটক পুলিশ। শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে আটককৃত আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
এর আগে, এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে ১১জনকে আসামী করে নির্যাতিতা গৃহবধূ (৩২) বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ৫জনকে আটক করে। আটকৃতরা হলো, উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আবু বক্কর ছিদ্দিক এবং মাসুদ, ইয়াছিন, আব্দুল হক মাস্টার, ওবায়দুল হক।
সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, গত ৭-৮দিন পূর্বে ওই গৃহবধূ পারিবারিক কলহের জের ধরে কোম্পানীগঞ্জস্থ তার বাবার বাড়ি চলে যায়। পরে ৫ সেপ্টেম্বর তার স্বামীর বন্ধু দিদারকে বিষয়টি জানাতে ফেনীতে যান ওই গৃহবধূ। এক পর্যায়ে দিদার রাতে সেনবাগ তার স্বামীর বাড়িতে তাকে পৌঁছে দেবার কথা বলে ফেনী থেকে সেনবাগ নিয়ে আসে। কিন্তু তাকে তার স্বামীর বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে দিদার জোর পুর্বক একটি নির্জনস্থানে নিয়ে যায়। পরে সেখানে দিদারসহ আরো তিনজন তাকে ধর্ষণ করে।
ওসি আব্দুল বাতেন মৃধা আরো জানান, ভুক্তভোগী গৃহবধূ বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য ছিদ্দিককে জানালে ইউপি সদস্যসহ শালিসদ্বাররা উল্টো ওই নারীকে খারাপ আখ্যা দিয়ে মারধর করে পুনরায় বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। এক পর্যায়ে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে গৃহবধূ বিষয়টি সেনবাগ থানায় অবহিত করলে পুলিশ রাতেই ইউপি সদস্যসহ ধর্ষণের সঙ্গে জড়িতদের আটক করে। অভিযুক্তদের অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ জোর তৎপরতা চালাচ্ছে।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.