সোনাইমুড়িতে মা হত্যার অভিযোগে পিতার বিরুদ্ধে পুত্রের মামলা

সোনাইমুড়ি (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর সোনাইমুড়িতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী তাজনাহারকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ এনে তারই পুত্র বাদী হয়ে পিতা আবু তাহেরের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মঙ্গলবার (১১আগষ্ট) বিকেলে এ মামলা দায়ের করে। পুলিশ এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

জানা যায়, বিদ্যুৎ বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী আবু তাহেরের (৬৫) সাথে তার স্ত্রী তাজনাহার বেগমের সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলছিল।

নিহতের ছেলে ও মামলার বাদী রুবেল হোসেন জানান, কিছুদিন পূর্বে আমরা একটি জমি ক্রয় করায় আমার বাবা আবু তাহের মা তাজনাহার বেগমকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত তিন দিন পূর্ব আমার মায়ের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বাবা আবু তাহের আমার মাকে হত্যার হুমকিও দিয়ে থাকেন।

প্রতিদিনের মত সোমবার রাতে খাবার খেয়ে পরিবারের লোকজন সবাই ঘুমিয়ে পড়লে গভীর রাতে কোনো এক সময়ে আমার বাবা আবু তাহের ঘুমের মধ্যে মা তাজনাহার বেগমকে ধারালো বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে ঘরের দরজা খোলা রেখে পালিয়ে যায়। সকালে পরিবারের লোকজন মাকে শোয়ার ঘরে গিয়ে বিছানার উপর রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। পরে তারা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সোনামুড়ি থানা পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে চেয়ারম্যান ও সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে দেওটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন শাকিল বলেন, দীর্ঘদিন যাবত আবু তাহের ও তার স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে একাধিক শালিশ বৈঠকও হয়। পারিবারিক বিরোধের জের ধরেই এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হতে পারে।

সোনাইমুড়ি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জিসান আহমেদ বলেন, হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহত গৃহবধূর ছেলে রুবেল হোসেন বাদী হয়ে তার পিতা আবু তাহেরের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.