প্রতারণাই যার নেশা ও পেশা, অবশেষে গ্রেফতার

সদর (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর সদর উপজেলা থেকে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৫ মে) দুপুরে আটককৃত যুবককে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ হয়েছে। এর আগে, রোববার (২৪ মে)  রাতে অভিযোগের সূত্র ধরে সুধারাম মডেল থানার পুলিশ তাকে আটক করে।

গ্রেফতারকৃত, জিহাদুল ইসলাম (২৪), নোয়াখালীর সদর উপজেলার কালাদরাপ ইউনিয়নের চুলডগী গ্রামের বক্তার মিয়া বাড়ির হারুনুর রশিদ’র ছেলে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তারকৃত জিহাদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে কখনো প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের কর্মকর্তা আবার কখনো প্রতিরক্ষা সচিবের ব্যক্তিগত সহকারী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মানুষকে চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে অর্থ আদায়ের মাধ্যমে প্রতারণা করে আসছে। প্রতারণার শিকার এক ব্যক্তি এ ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে তাকে আটক করে পুলিশ। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, এ প্রতারক প্রতারণার মাধ্যমে অঢেল অর্থ বিত্তের মালিক হয়েছেন। প্রতারণা করা তার কাছে  নেশা ও পেশা দাঁড়িয়েছে।

সুধারাম মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) টমাস বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন বলেন, দুপুরে তার বিরুদ্ধে একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত জিহাদুল ইসলাম একজন বড় ধরনের প্রতারক। তার গ্রেপ্তারের খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রতারণার শিকার একাধিক ব্যক্তি থানায় এসে জানিয়েছেন তারা তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করবেন।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.