কোম্পানীগঞ্জে বিএনপি নেতা ফখরুল এর বাড়ীতে মওদুদ সমর্থকদের হামলা, ভাংচুর

0
298
https://www.noakhalitimes.com

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে উপজেলা বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে বিএনপি নেতা ফখরুল’র বাড়ীতে মওদুদ সমর্থকদের হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় তারা ফখরুলের বাড়ী ও একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের হাসপাতাল গেইট সংলগ্ন বিএনপি নেতা মোহাম্মদ ফখরুল ইসলামের বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সামছুদ্দিন হায়দার, খালেদ সাইফুল্লাহ ও সোহানের নেতৃত্বে ১৫-২০জনের সংঘবদ্ধ বিএনপি সমর্থকের একটি সংঘবদ্ধদল লাঠি, শোটা ও রড নিয়ে বিএনপি নেতা ফখরুল ইসলামের বাড়ীতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে তার বাড়ীর কাঁচের দরজা ও একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী বেরিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

বিএনপি নেতা কাজী একরাম ও জসিম উদ্দিন আলমগীর জানান, আজ সন্ধ্যার দিকে আমরা মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম’র বাসায় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিকদার’র নেতৃত্বে আসন্ন বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ঘরোয়া পরিবেশে এক আলোচনা সভায় মিলিত হই। এক পর্যায়ে খালেদ সাইফুল্লাহ, বসুরহাট পৌরসভা ৮ নং ওয়ার্ডের হৃদয়’র নেতৃত্বে ফখরুল’র বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার বাসার কাঁচের দরজা ও একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে।

এ ব্যাপারে মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম’র সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, গত ২৪ সেপ্টেম্বর ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ’র বাড়ীতে মওদুদ ঘোষিত কমিটির যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় আমাকে প্রতিহত করার জন্য একটি রেজুলেশন তৈরী করে। তারই ধারাবাহিকতায় ২৪ঘণ্টা যেতে না যেতে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ’র ইন্দনে কামাল উদ্দিন চৌধুরী ও মাহমুদুর রহমান রিপনের নির্দেশে মওদুদ ঘোষিত স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সামছুদ্দিন হায়দার ও সাবেক কাউন্সিলর নুর নবী সবুজের ছেলে আবদুল্লাহ সোহান জাকের হোসেন ও হৃদয় এর নেতৃত্বে আমার বাড়ীতে হামলা ও ভাংচুর করে।

মওদুদ ঘোষিত কমিটির উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান রিপন জানান, জামায়াত নেতা ফখরুল ইসলামের বাড়ীতে নুরুল আলম সিকদার’র নেতৃত্বে একটি গোপন বৈঠক বসে। বৈঠকে জাহাঙ্গীর আলম, শাহাদাত হোসেন ও নুরুল আলম সিকদার’র মাঝে টাকার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে মারামারি করতে গিয়ে ফখরুলের বাড়ী ভাংচুর হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে